ঢাকা, ||

এবার ব্যবহারকারীদের ক্যামেরায় ফেইসবুকের নজরদারি ???


তথ্যপ্রযুক্তি

প্রকাশিত: ৪:৫১ অপরাহ্ণ, জুন ৯, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

কোনো ব্যবহারকারী সাইটটইতে ভিন্ন ভিন্ন ধরনের কনটেন্ট দেখার পর তার চেহারার অভিব্যক্তিতে কী ধরনের পরিবর্তন আসে তা দেখতে প্রতিষ্ঠানটি কীভাবে তাদের প্রযুক্তি ব্যবহার করবে- এ নিয়েই ওই পেটেন্ট-এর ডকুমেন্টে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে। এ থেকে পাওয়া ছবিগুলো থেকে কোন কনটেন্টে ব্যবহারকারী কেমন বোধ করেন তা বিশ্লেষণ করা হবে। ব্যবহারকারীদের আরও বেশি সময় ধরে সাইটে রাখতে এ তথ্য ব্যবহার করবে সোশাল জায়ান্টটি। যদি কোনো ব্যবহারকারী তার কোনো বন্ধুর ছবি দেখে হেসে থাকেন, তাহলে ফেইসবুক অ্যালগরিদম এই তথ্য রেকর্ড করে রাখবে। পরবর্তীতে ওই ব্যবহারকারীর নিউজ ফিডে তার ওই বন্ধুর ছবি আরও বেশি করে দেখানো হবে, বলা হয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেনডেনট-এর প্রতিবেদনে।

পেটেন্ট আবেদনটিতে থাকা আরেক উদাহরণে বলা হয়, যদি কোনো ব্যবহারকারী কোনো বিড়ালের বাচ্চার খেলছে এমন ভিডিও দেখে স্ক্রিন থেকে চোখ ফিরিয়ে নেয়, তবে ফেইসবুক ওই ব্যবহারকারীর নিউজ ফিডে একই ধরনের ভিডিও দেখানো বন্ধ করে দেব।এ ছাড়াও, যদি কোনো ব্যবহারকারীকে স্কচ-এর কোনো বিজ্ঞাপন দেখতে দেখা যায়, তবে ফেইসবুক তাকে আরও বেশি স্কচ-এর বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য বেছে নেবে।২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে এই পেটেন্ট আবেদন দাখিল করা হয় ও ২০১৫ সালের অগাস্টে তা প্রকাশিত হয়। ফেইসবুক অবশ্য এই নজরদারী পরিকল্পনার বিষয়টি স্বীকার করছে না।

এ নিয়ে ফেইসবুকের এক মুখপাত্র বলেন, “আমরা অনেক সময় এমন প্রযুক্তির জন্য পেটেন্ট চাই, যা আমরা কখনও বাস্তবায়ন করি না, আর পেটেন্টগুলোকে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার আভাস হিসেবে দেখা উচিৎ নয়।” ফেইসবুক গোপনে লাখ লাখ ব্যবহারকারীর নিউজ ফিড বদলে দিয়েছিল শুধু এটি পরীক্ষা করতে যে এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের আবেগে প্রভাব পড়ে কিনা- ২০১৪ সালে এমন খবর বের হয়েছিল। এ ঘটনার দিকে ইঙ্গিত করে এই পেটেন্ট-এর বিষয়টিকে উদ্বেগজনক বলা হয়েছে প্রতিবেদনটিতে।  ২০১৬ সালে ফেইসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ-এর এক পোস্টে দেখা যায়, তিনি তার ওয়েবক্যাম আর মাইক্রোফোন টেপ দিয়ে ঢেকে রেকেছেন।

Top