ঢাকা, ||

অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধে জাতিসংঘ নিরাপত্তা কাউন্সিলের আহ্বান


লিড নিউজ

প্রকাশিত: ৭:৪০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

 

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা কাউন্সিল। রাখাইনে সৃষ্ট মানবিক সঙ্কট নিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা কাউন্সিলের রূদ্ধদ্বার বৈঠক শেষে এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানায় ১৫ সদস্যের কাউন্সিল। বিবৃতিতে, রাখাইনে নিরাপত্তা অভিযানের সময় মাত্রাতিরিক্ত সহিংসতার খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করে অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধ, পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে আনা, আইন-শৃঙ্খলা পুনপ্রতিষ্ঠা এবং বেসামরিক ব্যক্তিদের সুরক্ষা নিশ্চিতের আহ্বান জানানো হয়। জাতিসংঘে নিযুক্ত বৃটিশ রাষ্ট্রদূত ম্যাথিউ রাইক্রফট বলেন, নয় বছরে এবারই প্রথম নিরাপত্তা কাউন্সিল মিয়ানমার ইস্যুতে একটি বিবৃতিতে একমত হয়েছে।

নিরাপত্তা কাউন্সিলের রূদ্ধদ্বার বৈঠক শুরুর আগে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর সামরিক অভিযান বন্ধে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানান জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। রোহিঙ্গা শরণার্থী পরিস্থিতিকে তিনি ‘বিপর্যয়মূলক’ ও ‘সম্পূর্ণ অগ্রহণযোগ্য’ আখ্যা দেন। রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দিতে অথবা কমপক্ষে সাধারণ জীবন যাপনের সুবিধা দেয়ার জন্য মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানান জাতিসংঘ মহাসচিব। একইসঙ্গে তিনি বাংলাদেশে পালিয়ে আসা আনুমানিক ৩ লাখ ৮০ হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থীকে সহায়তা দেয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান।

গুতেরেস বলেন, ‘আমি মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি সামরিক অভিযান ও সহিংসতা বন্ধ এবং আইনের শাসন সমুন্নত রাখার আহ্বান জানাচ্ছি। একইসেঙ্গ যাদের দেশ ছেড়ে যেতে বাধ্য হতে হয়েছে তাদের ফেরত যাবার অধিকার স্বীকৃতি দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

গুতেরেস আরো বলেন, যে মানবিক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তা বিপর্যয়মূলক। সহিংসতা থেকে পালানো শরণার্থী রোহিঙ্গাদের জন্য মানবিক সহায়তা দিতে সকল দেশের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। এছাড়াও, জাতিসংঘের সংস্থাগুলো, এনজিও এবং অন্যান্য সংস্থাগুলোর পাঠানো ত্রাণ সহায়তা সরবরাহ নিশ্চিত করতে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান জাতিসংঘ মহাসচিব।

Top